ঢাকা,শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন
web banner
নওগাঁর মান্দায় জলাশয়ে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুইজনের মৃত্যু

[ad_1]


নওগাঁর মান্দায় জলাশয়ে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুইজনের মৃত্যু

নওগাঁর মান্দায় জলাশয়ে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

তারা সম্পর্কে ফুফু-ভাতিজা। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে উপজেলার মান্দাকোলা বিলে (জলাশয়) এ দুর্ঘটনায় ঘটে।

ঘটনার পর তড়িঘড়ি করে জলাশয় থেকে বিদ্যুতের সব তার সরিয়ে নেয়া হয়। ফুফু-ভাতিজার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

নিহতরা হলেন-উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়নের বড়পই পূর্বপাড়া গ্রামের ইব্রাহিম হোসেনের স্ত্রী আম্বিয়া খাতুন (৪০) ও রফিকুল ইসলামের ছেলে রুমান (১২)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলা থেকে মান্দাকোলা জলাশয় ইজারা নিয়ে মান্দা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোল্লা এমদাদুল হকের ছেলে মাহফুজুর রহমান (মাহফুজ) মাছচাষ করছেন। জলাশয়ের পূর্বপাশে একটি বেড়ার ঘর করে সেখানে মিটার নিয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়া হয়। রাতে আলোর ব্যবস্থা করতে সেখান থেকে জলাশয়ের নিচ দিয়ে তার টেনে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে মান্দাকোলার মাঠ থেকে ঘাস কেটে আম্বিয়া খাতুন ও রুমান বাড়ি ফিরছিলেন। এক পর্যায়ে রুমান নিজের অজান্তে পানিতে থাকা বিদ্যুতের তারে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়। এসময় ফুফু আম্বিয়া খাতুন তাকে বাঁচানোর জন্য এগিয়ে গেলে তিনিও বিদ্যুৎপৃষ্ট হন। এতে ঘটনাস্থলে দুজনই মারা যান।

দুপুর ১টার দিকে ঘটনা ঘটলেও ২টার দিকে জানাজানি হয়। পরে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে তাদের উদ্ধার করেন। নিহত রুমানের বাবা-মা ঢাকায় থাকায় সে তার ফুফুর সঙ্গে থাকতো।

বড়পই পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুল হামিদ, ইসমাইল ও অমিসহ কয়েকজন জানান, উপজেলা চেয়ারম্যানের ছেলে মাহফুজুর রহমান (মাহফুজ) অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে পানির নিচ দিয়ে সারা বিলে দিয়ে রেখেছেন। ফুফু-ভাতিজা মাঠ থেকে ঘাস কেটে বাড়ি ফেরার পথে ওই তারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুইজনই মারা যান। ঘটনার পর পাহারাদাররা তড়িঘড়ি করে বিল থেকে সব তার সরিয়ে নিয়েছেন।

এ ব্যাপারে জলাশয়ের ইজারাদার মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘গত দেড় বছর ধরে জলাশয় ইজারা নিয়ে মাছচাষ করছি। জলাশয়ে কোনো বিদ্যুৎ সংযোগ নেই। যারা গুজব রটাচ্ছেন বিদ্যুৎপৃষ্টে মারা গেছে, তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমরা রাজনৈতিক পরিবারের সদস্য হওয়ায় অনেক ব্যাপার থাকে। প্রতিপক্ষকরা বিভ্রান্ত ছড়াতেই পারে।’

মান্দা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম আসাদুজ্জামান বলেন, জলাশয়ে আমাদের কোনো সংযোগ নেই। যদি অবৈধ সংযোগ হয়ে থাকে আমরা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।

তবে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন মান্দা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জাহিদুল ইসলাম। তিনি বলেন, মান্দা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ছেলে মাহফুজুর রহমান জলাশয় ইজারা নিয়ে মাছচাষ করছিলেন। জলাশয়ে তিনি রাতের আলোর ব্যবস্থা করার জন্য বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে রাখেন।

তিনি আরও জানান, রুমানের বাম হাতের পেছনে বিদ্যুৎপৃষ্টে পোড়া চিহ্ন রয়েছে। ঘটনার পর জলাশয়ের পাহারাদাররা তারগুলো সরিয়ে ফেলেছেন।

রাত ৮টার দিকে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে। ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান এসআই জাহিদুল ইসলাম।

[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1xlove